পোশাক ‘রুচিশীল’ নয়, এই কারণে স্কুল থেকে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হল ১৭ বছরের এক ছাত্রীকে। ছাত্রীর বাবা এই ঘটনায় প্রবল অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। ছবিসহ গোটা ঘটনার বিবরণ তুলে দিয়েছেন ফেসবুকে। ভদ্রলোকের দাবি, যথেষ্ট ভদ্রবেশেই স্কুলে গিয়েছিল তাঁর মেয়ে। স্কুলের এই ব্যবহার মেনে নেওয়া যায় না।
এই ঘটনা ব্রিটিশ কলম্বিয়ার ক্যামলুপস শহরের। ক্রিস উইলসনের ১৭ বছরের মেয়ে ক্যারিস কাঁদতে কাঁদতে বাড়ি ফেরে। তার পোশাক অন্তর্বাসের (লিঙ্গারি) মতো দেখাচ্ছে, এই বলে বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছিল স্কুল। ক্যারিস সাদা ফুলহাতা টপ এবং তার ওপর ফিতের কাজ করা হাঁটু পর্যন্ত ঝুলের কালো পোশাক পরেছিল। তার বাবা ক্রিস বলছেন, পোশাক যথেষ্টই ভদ্রসভ্য। শুধু ফিতের ডিজাইনের জন্য লিঙ্গারি বলার কোনও মানে হয় না।
ক্রিস বলছেন, এটা হওয়া উচিত ছিল না। তিনি অভিযোগ জানালে, স্কুলের তরফে সাফাই দেওয়া হয়, তিনি খানিকটা পুরনোপন্থী। এতেও রাগ কমেনি ক্রিসের। ফেসবুকে ছবি, ভিডিও শেয়ার করে লিখেছেন, ‘আমি আমি হতাশ, আহত হয়েছি। সিস্টেম নিয়ে আমি খুবই বিরক্ত।’

ক্রিস ফেসবুকে লাইভে দাবি করেন, “আমার মেয়েকে ক্লাস থেকে একজন শিক্ষক জোর করে বের করে নিয়ে আসে এবং অধ্যক্ষর সামনে নিয়ে যায়।” অধ্যক্ষও পরে মেনে নেন, এটা কোনো খারাপ পোশাক ছিল না। সহপাঠীরাও মেয়েটির পাশে দাঁড়ায়।