৩০ বলে দরকার ছিল মাত্র ৩১ রান। হাতে ছিল ৬ টি উইকেট। সেখান থেকে ১০ রানে হার! কেকেআর সমর্থকরা যেমন এই হার বিশ্বাস করতে পারছেন না। তেমনই মানতে পারছেন না ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিক শাহরুখ খানও। কিং খানের সাফ কথা, এই পারফরম্যান্সের জন্য সমর্থকদের কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত দলের।
সচরাচর কিং খানকে দলের হার নিয়ে তেমন হতাশা প্রকাশ করতে দেখা যায় না। বরং তিনি হারের পর দলের তারকাদের মানসিকভাবে চাঙ্গা করার চেষ্টা করেন। এর আগে যারা নাইট শিবিরে খেলেছেন, বা অধিনায়কত্ব করছেন, তাঁরা সকলেই জানিয়েছেন, মালিক হিসেবে শাহরুখ খুব সাপোর্টিভ। সবসময় দলের পাশে থাকেন। কিন্তু মঙ্গলবারের এই হারের যন্ত্রণা এতটাই বেশি যে কিং খানও নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেননি। সটান টুইট করে বলে দিয়েছেন, ‘‌দলের এই পারফরম্যান্স হতাশাজনক। আমাদের উচিত সমর্থকদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেওয়া।’‌ অপ্রত্যাশিতভাবে ম্যাচ হেরে কেকেআর অধিনায় ইয়ন মর্গ্যানকেও বিধ্বস্ত বললে কম বলা হয়। ভাবতে পারছেন না, কীভাবে এ রকম জেতা ম্যাচ হেরে গেল তাঁর টিম। তাঁর কথায়, ‘‌নিঃসন্দেহে মুম্বই দুর্দান্ত টিম। কিন্তু  আমরা ভাল খেলেছিলাম। ম্যাচের প্রথমার্ধটা, রান তাড়ার একটা লম্বা সময় পর্যন্ত আমরাই কর্তৃত্ব করছিলাম ম্যাচে। কিন্তু পরে গিয়ে আর পারলাম না। অনেক ভুলভ্রান্তি করেছি আমরা। আশা করছি, সেগুলোকে শুধরে আবার ঘুরে দাঁড়াতে পারব।’‌ সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘‌ম্যাচের শেষ দিকটা নিয়ে যত ভাবছি তত যন্ত্রণা হচ্ছে। শেষ দিকে আমরা প্রায় কিছুই করতে পারলাম না। না অলআউট আক্রমণে গেলাম, না অন্য কিছু ভাবলাম। আমরা খেলাটাকে শেষ পর্যন্ত নিয়ে গিয়ে সাধারণত শেষ করি। আমাদের টিমের স্টাইলের সঙ্গে সেটা খাটে। কিন্তু এদিন পারলাম না। উন্নতি করতে হবে আমাদের।’‌