টোকিয়াে অলিম্পিকে (Sports) ব্রোঞ্জ পদকজয়ী হকি তারকা রূপিন্দর পাল সিং বৃহস্পতিবার অবসর ঘােষণা করলেন । আজ টুইটারে একটা পােস্ট করে তিনি নিজের অবসরের কথা জানান ।

রূপিন্দর লিখেছেন , ‘ আমি আজই ভারতীয় হকি দল থেকে অবসর গ্রহণ করলাম । এই সিদ্ধান্তের কথা সকলকেই জানাচ্ছি । গত দুমাস আমার জীবনের সবথেকে ভালাে অধ্যায় ছিল । দলের সতীর্থদের সঙ্গে টোকিয়াে অলিম্পিকের(Sports) পােডিয়ামে দাঁড়ানাের সৌভাগ্য অর্জন করেছি । এটা আমার জীবনের সেরা অভিজ্ঞতা । এটাকে আমি সারাজীবন বহন করব ।’

সঙ্গে তিনি আরও যােগ করেছেন , ‘ আমি মনে করি , এবার সেই সময়টা চলে এসেছে যখন দেশের তরুণ এবং প্রতিভাবান প্রজন্মকে জায়গা ছেড়ে দেওয়া উচিত ।

গত ১৩ বছর ধরে ভারতীয় হকি দলের প্রতিনিধিত্ব করে আমি যে আনন্দ উপভােগ করেছি , এবার ওদেরও সেই সুযােগ দেওয়া উচিত ।

৩০ বছর বয়সি রূপিন্দর জাতীয় হকি দলের অন্যতম সেরা ড্রাগ ফ্লিকার , তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই । দেশের হয়ে তিনি মােট ২২৩ টি ম্যাচ খেলেছেন ।

Sports: Indian hockey star resigns after winning bronze in Olympics
রুপিন্দর পাল সিং

 

চলতি বছর টোকিয়াে গেমসে যে ভারতীয় ক্রিকেট দল ব্রোঞ্জ পদক জয় করেছে , সেই দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন রূপিন্দর পাল সিং । ৪১ বছর পর ভারতীয় হকি দল অলিম্পিকের মঞ্চে পদক জয় করল ।

তিনি আরও যােগ করেছেন , ‘ আমি আজ অবসর গ্রহণ করলেও মানসিকভাবে অত্যন্ত খুশি । কারণ আমি জীবনের সেরা স্বপ্নটাকে ইতিমধ্যেই অর্জন করে ফেলেছি ।

আর সেটা হল ভারতের হয়ে অলিম্পিকে পদক জয় । ভারতীয় হকি (Sports) দলের প্রতিভাবান খেলােয়াড়দের সঙ্গে যে সময়টা কাটানাের সময় আমি পেয়েছি , সেই স্মৃতিটুকুই আমি বহন করতে চাই ।

প্রত্যেকের জন্য আমার অগাধ শ্রদ্ধা রইল । আমার সতীর্থরা এক একজন শক্তির এক একটা স্তম্ভ । ভারতীয় হকিকে নয়া উচ্চতায় । তুলে নিয়ে যাওয়ার জন্য আমার অসংখ্য শুভেচ্ছা রইল । ‘

পাঞ্জাবের ফরিদকোট থেকে নিজের যাত্রা শুরু করেছিলেন রূপিন্দর । সেখান থেকে টোকিয়াের পােডিয়ামের রাস্তাটা কিন্তু খুব একটা সহজ ছিল না তার ।

২০১০ সালের মে মাসে সুলতান আজলান শাহ কাপে জাতীয় হকি দলে অভিষেক হয় রূপিন্দরের । তারপর থেকেই দলের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে ওঠেন রূপিন্দর ।

ভিআর রঘুনাথের সঙ্গে তার ড্রাগ ক্লিক জুটি নিয়ে আলােচনা শুরু হয়ে যায় । তার অকুতােভয় রক্ষণ ছাড়াও পেনাল্টি কর্নার কিংবা স্পট সিচুয়েশনের জন্য যে কোনও অধিনায়কের প্রথম পছন্দ ছিলেন রূপিন্দর ।

২০১৪ বিশ্বকাপে ভারতীয় হকি দলের সহ অধিনায়কের পদে তার নাম নির্বাচন করা হয় । পাশাপাশি ওই একই বছরে কমনওয়েলথ গেমসে তিনি রুপাে জয় করেন ।

রূপিন্দরের ঝুলিতে এশিয়ান গেমসের জোড়া পদক রয়েছে।২০১৪ সালে ইঞ্চিয়নে সােনার পদক এবং ২০১৮ সালে জাকার্তায় ব্রোঞ্জ পদক ।