নিউজপোল ডেস্ক: কথায় বলে, যার বিয়ে তার হুঁশ নেই, পাড়া-পড়শির ঘুম নেই। সেরকমই অবস্থা হয়েছে চন্দ্রযান ২ নিয়ে। ভারতের এই মিশন নিয়ে পড়শি অর্থাৎ পাকিস্তানের কৌতূহলের শেষ নেই। চন্দ্রযান ২-এর ব্যর্থতা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পাকিস্তানবাসী ভারতকে তাচ্ছিল্য করলেও গুগল ট্রেন্ডের পরিসংখ্যান বলছে, চন্দ্রযান ২, ইসরো এবং বিক্রম ল্যান্ডারকে নিয়ে খবরাখবর নিতে ভারতবাসীর চেয়েও বেশি আগ্রহী পাকিস্তানের মানুষ।

চন্দ্রযান ২ ব্যর্থ হওয়ায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ইসরো-র এই পদক্ষেপকে ব্যঙ্গ করেছেন পাকিস্তানবাসী। অথচ গুগল ট্রেন্ড দেখলে মনে হবে, মায়ের চেয়ে মাসির দরদই বেশি। চন্দ্রযান সংক্রান্ত তিনটি কিওয়ার্ডের নিরিখে এমনই পরিসংখ্যান দেখাচ্ছে গুগল ট্রেন্ড। ‘চন্দ্রযান ২’, ‘ইসরো’ এবং ‘বিক্রম ল্যান্ডার’- এই তিনটি কিওয়ার্ড লিখে তথ্য সন্ধানের দিক থেকে তুল্যমূল্য বিচারে এগিয়ে পাকিস্তানই। গুগল ট্রেন্ড অনুসারে, গত একমাসে ‘চন্দ্রযান- ২’-এর তুল্যমূল্য বিচারে পাকিস্তানবাসীর শতকরা ৬১ জন ইসরো, ১৬ জন বিক্রম ল্যান্ডার এবং ৮৭ জন চন্দ্রযান ২ সংক্রান্ত তথ্যের জন্য গুগলের শরণাপন্ন হয়েছেন। যেখানে ভারতীয়দের সংখ্যা অনেকাংশেই কম।’চন্দ্রযান- ২’-এর তুল্যমূল্য বিচারে ভারতীয়দের ২৮ শতাংশ ইসরো, পাঁচ শতাংশ বিক্রম ল্যান্ডার এবং ৮৬ শতাংশ মানুষ চন্দ্রযান ২ বিষয়ে জানতে গুগল সার্চ করেছেন।

গুগল ট্রেন্ডে মূলত, গুগল সার্চ ইঞ্জিনে তথ্য, ছবি, সংবাদ খোঁজার পরিসংখ্যান দেওয়া থাকে। সেই হিসেবে বলাই যায়, পাকিস্তানবাসীর অনেকাংশ চন্দযানের ব্যর্থতার কথা তুলে ধরে ভারতকে তাচ্ছিল্য করলেও তাঁরাই বেশি আগ্রহী এই বিষয়ে।