নিউজপোল ডেস্কঃ দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক সঙ্গী আসতে আসতে হয়ে উঠেছিলেন বন্ধুও। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সরকার পরিচালনার ক্ষেত্রে অন্যতম ভরসা ছিলেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। গত বছর এইদিনে প্রয়াত হয়েছিলেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী। তাঁর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীকে স্মরণ করে ট্যুইটারে প্রধানমন্ত্রী লিখলেন, ‘আমার বন্ধুকে খুব মিস করি।’

প্রধানমন্ত্রী টুইট লিখেছেন, “গত বছর আজকের দিনে আমরা অরুণ জেটলিকে আমরা হারিয়েছিলাম। আমি আমার বন্ধুকে ভীষণ মিস করছি। তিনি দেশের জন্য অনেক করেছিলেন। তাঁর বুদ্ধিদীপ্ততা, মেধা, আইনি প্রজ্ঞা এবং ব্যক্তিত্ব—তাঁকে বিখ্যাত করে রাখবে।”

জেটলির কথার জাদু ছিল সর্বজনবিদিত। ‘ওয়ান লাইনার’-এর জন্য সাংবাদিকমহলেও তাঁর জনপ্রিয়তার কথা উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। ২০১৪ সালে প্রথম মোদী সরকারের অর্থমন্ত্রী ছিলেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী। তাঁর সময়েই একাধিক আর্থিক সংস্কারের পথে হেঁটেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। জেটলি অর্থমন্ত্রী থাকাকালীনই নোটবন্দির মত বড় পদক্ষেপ নিয়েছিল কেন্দ্র।

দীর্ঘদিন ক্যানসারে আক্রান্ত ছিলেন এই রাজনীতিবিদ অরুন জেটলি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হাসপাতালে দীর্ঘদিন চিকিৎসাধীন ছিলেন জেটলি। ফিরে এসে কাজেও যোগ দিয়েছিলেন। একটি ভিডিও টুইট করেছেন প্রধানমন্ত্রী, তাতেও মোদীকে বলতে শোনা গিয়েছে, শারীরিক অসুস্থতা থাকলেও দেশের কাজকে বাড়তি গুরুত্ব দিয়েছিলেন জেটলি।

তাঁর কথায়, “ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে কখনওই বেশি কথা বলতেন না জেটলি। তার চেয়ে তাঁর অগ্রাধিকারের জায়গা ছিল দেশের কাজ।” প্রধানমন্ত্রীর পাশাপাশি অমিত শাহ, বিজেপি সভাপতি জে পি নাড্ডাও ট্যুইটারে অরুণ জেটলিকে স্মরণ করেছেন।