আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পাণ্ডিয়ার সাফল্যের পিছনে রয়েছেন ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি (MS Dhoni)।একথা স্বীকার করেছেন স্বয়ং পাণ্ডিয়া। আগেও বহুবার তিনি তাঁর সাফল্যের পেছনে ধোনির (MS Dhoni) অবদানের কথা বলেছেন। আবারও বললেন গুজরাট টাইটান্সের ক্যাপ্টেন। জীবনের তিনটি ম্যাচ খেলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের (২০১৬) দলে সুযোগ পাওয়ার ঘটনা সচরাচর ঘটে না। ধোনি ছিলেন বলেই পাণ্ডিয়ার পক্ষে বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পাওয়া সহজ হয়েছিল। 

একটি পডকাস্টকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পাণ্ডিয়া বলেছেন, ”ভারতীয় দলে আমি যখন সুযোগ পেয়েছিলাম, তখন সুরেশ রায়না, হরভজন সিং, যুবরাজ সিং, এমএস ধোনি, বিরাট কোহলি, আশিস নেহরা ছিল। এদের খেলতে দেখেই আমি বড় হয়েছি। আমি খেলার আগেই এরা তারকা। অভিষেক ম্যাচের প্রথম ওভারেই আমি ১৯ রান দিয়েছিলাম। আমি তখনই ধরে নিয়েছিলাম এটাই আমার শেষ ওভার। কিন্তু মাহি ভাই আমার উপরে আস্থা রেখেছিল। ওর অধীনে খেলতে পেরে আমি নিজেকে ভাগ্যবান বলে মনে করি। আমার উপরে আস্থা রেখেছিল ধোনি।আমরা যেখানে এসে পৌঁছেছি, তার পিছনে মাহি ভাইয়ের অবদান রয়েছে।” ঘটনা হল প্রতিভা চিনতে ভুল করতেন না ধোনি। পাণ্ডিয়ার মধ্যে সেই প্রতিভা দেখেছিলেন ক্যাপ্টেন কুল। 

ধোনির কথা বলতে গিয়ে নস্ট্যালজিক হয়ে পড়েন হার্দিক পাণ্ডিয়া। তিনি বলেছেন, ”আমার আন্তর্জাতিক কেরিয়ারের তৃতীয় ম্যাচে মাহি ভাই বলে, তুমি বিশ্বকাপের দলে থাকবে। তিনটে ম্যাচ খেলে বিশ্বকাপের দলে জায়গা পাওয়া সত্যিই অভাবনীয় একটা ব্যাপার।” সাধারণত তিনটি ম্যাচ খেলেই বিশ্বকাপের দলে জায়গা পাওয়া সচরাচর হয় না। এ যেন স্বপ্ন সত্যি হওয়ার মতোই ব্যাপার। পাণ্ডিয়ার স্বপ্ন সত্যি হয়েছিল। পিছনে ছিলেন ধোনি (MS Dhoni) । 

আরও পড়ুন:Mahua Moitra: তৃণমূল সাংসদের বিরুদ্ধে সমন জারি আদালতের