নিউজপোল ডেস্কঃ আর ট্রেন বা বাস নয়, এবার মেট্রোতেই যাওয়া যাবে মায়ের দর্শন করতে। আর মাত্র কিছুদিন, তারপরেই যাত্রীরা দক্ষিণেশ্বর থেকে নোয়াপাড়া মেট্রোয় যাতায়াত করতে পারে।   অপেক্ষার অবসান। দক্ষিণেশ্বর-নোয়াপাড়ার সোমবারই উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আগামী ২২ তারিখ হুগলি জেলায় জনসভা করবেন তিনি। সেদিনই ডানলপ মাঠে সভা রয়েছে মোদীর। সেই সভা থেকেই দক্ষিণেশ্বর-নোয়াপাড়া মেট্রোর শুভ সূচনা করবেন তিনি। জানা গিয়েছে, ডানলপ মাঠে মোদীর সভামঞ্চের পাশেই একটি আলাদা মঞ্চ থাকবে। সেখান থেকেই রিমোটের মাধ্যমে নয়া মেট্রোর উদ্বোধন করবেন মোদী।  

উল্লেখ্য, আগে থেকেই নোয়াপাড়া থেকে দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত পরীক্ষামূলকভাবে মেট্রো চলাচল শুরু হয়েছিল। রেলের সেফটি কমিশনার এমাসের ৫ ও ৬ তারিখ পরিদর্শনে আসেন। অবশেষে মিলল ছাড়পত্রও। নর্থ-সাউথ মেট্রোর এই সম্প্রসারণে নতুন দিগন্ত খুলে যাবে বলে আশাবাদী রাজ্য। দক্ষিণেশ্বর-নোয়াপাড়া রুটে ২৩ ডিসেম্বর প্রথম ট্রায়াল রান হয়। তারপর আরও বেশ কয়েকদিন-ই ট্রায়াল রান হয়েছে। আর সবটাই হয়েছে নির্বিঘ্নে। এরপরই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এই রুটে পরিষেবা চালুর সিদ্ধান্ত নেন মেট্রো আধিকারিকরা। তবে সেক্ষেত্রে প্রয়োজন ছিল রেল সেফটি কমিশনারের ছাড়পত্র। সেই পর্যবেক্ষণের পর ছাড়পত্র মিলতেই এবার চালু হতে চলেছে বহু প্রতীক্ষিত দক্ষিণেশ্বর-নোয়াপাড়া মেট্রো সার্ভিস। 

বলা বাহুল্য, দক্ষিণেশ্বর ও নোয়াপাড়ার মাঝে রয়েছে বরাহনগর মেট্রো স্টেশন। ৫৫ ফিট উচ্চতার এই স্টেশনটি কলকাতা মেট্রোর  সব চেয়ে উঁচু স্টেশন।  মেট্রো সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, কলকাতার প্রথম যে মেট্রো রুট সেই পথেরই এক্সটেনশন হচ্ছে দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত। ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর ট্রেন ধরতে হলে কোনও একটি জংশন স্টেশনে নেমে ট্রেন বদল করতে হবে যাত্রীদের।মেট্রোয় চেপে এবার কালীপুজো দিতে যাওয়া যাবে দক্ষিনেশ্বর মন্দিরে। নিউ গড়িয়া থেকে মাত্র এক ঘণ্টায় পৌঁছে যাওয়া যাবেন দক্ষিণেশ্বর।