প্রথম ট্রান্সজেন্ডার অ্যাথলিট হিসেবে অলিম্পিক্সে অংশগ্রহণ করবেন নিউজিল্যান্ডের ওয়েট লিফটার লরেল হাবার্ড। জন্মগতভাবে পুরুষ লরেলকে নারী হিসেবেই চিহ্নিত করা হয়েছে। নারীদের সঙ্গে লড়ার সুযোগ পেয়েছেন তিনি। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক্স কমিটির যোগ্যতা অর্জনের মাপকাঠিতে কিছু সংশোধন আনার পরেই টোকিও অলিম্পিক্সে সুযোগ পেয়েছেন লরেল। প্রসঙ্গত, গত বছর হওয়ার কথা ছিল ক্রীড়ার এই মহাযজ্ঞ, অতিমারীর কারণে তা এক বছর পিছিয়ে গেছে।
করোনার প্রকোপে এক বছর ধরে ক্ষতিগ্রস্ত ক্রীড়াজগত। ফুটবল, ক্রিকেটের মতো বড় ইভেন্ট ফের চালু হলেও, অ্যাথলেটিক্স এখনও স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে পারেনি। এমনকী বন্ধ হয়ে গেছিল অলিম্পিক্সের যোগ্যতা অর্জনকারী প্রতিযোগিতা। বাধ্য হয়ে তা ছোট করতে হয়েছে। টোকিয়োর টিকিট পেতে নতুন মাপকাঠি নির্ধারিত হয়েছে। নারী বিভাগে সুযোগ পেয়েছেন ট্রান্সজেন্ডার লরেল, যা প্রাচীনতম ক্রীড়া ইভেন্টের ইতিহাসে প্রথমবার।