সুদীপ্ত সেনের বয়ানকে হাতিয়ার করেই বঙ্গ বিজেপিকে কোণঠাসায় তৃণমূল। শুভেন্দু অধিকারীর (Shubhendu Adhikary) উপর চাপ বাড়াতে সোমবারই সিজিও কমপ্লেক্সের সামনে ধরনায় বসেন কুণাল ঘোষ, সায়নী ঘোষরা।এদিনের এই কর্মসূচির ডাক দিয়েছিল তৃণমূল ছাত্র পরিষদ ও তৃণমূল যুব কংগ্রেস ৷ মঙ্গলবার প্রতিবাদ কর্মসূচির দ্বিতীয় দিনে রাজভবন অভিযান করবে রাজ্যের শাসকদল ৷

প্রসঙ্গত, সারদা কাণ্ডে ধৃত সুদীপ্ত সেন দাবি করেছেন, তাঁকে ব্ল্যাকমেইল করে টাকা নিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী (Shubhendu Adhikary) । ৫০ লাখ টাকার ড্রাফট দেখিয়ে ‘লাখ লাখ কোটি কোটি’ টাকা নিয়েছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু। আর এই অভিযোগকে ঘিরেই শাসক শিবিরের প্রশ্ন, সারদা কেলেঙ্কারিতে যদি তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাকে সিবিআই গ্রেফতার করতে পারে, তবে সারদার কর্ণধার নিজে যখন শুভেন্দু অধিকারীর (Shubhendu Adhikary) নাম করছেন, তখন তাঁকে কেন গ্রেফতার করা হবে না? তিনি বিজেপিতে আছেন বলেই কি সিবিআই হাত থেকে ছাড়পত্র পেয়ে চলেছেন?

শুধু তাই নয়, একসময় বিজেপি অফিসে স্ক্রিনে শুভেন্দু অধিকারীর টাকা নেওয়ার ছবি দেখিয়ে নারদা মামলায় দিনের পর দিন তাঁর গ্রেফতারি চেয়েছে গেরুয়া শিবির। সেই শুভেন্দু অধিকারীর (Shubhendu Adhikary) নাম-ই নেই নারদা মামলার এফআইআর-এ! যদিও তৃণমূলের এই সব তোপ-ই হেলায় উড়িয়ে দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী।

আরও পড়ুন:Sonia Gandhi: ধর্ষনের অভিযোগ সোনিয়া গান্ধীর পি এর বিরুদ্ধে, এফআইআর দায়ের দিল্লি পুলিশের