নিউজপোল ডেস্ক: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো তথা তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় আগেও বিভিন্ন কারণে বিতর্কের কেন্দ্রে এসেছেন। আবারও এলেন। ফেসবুকে তাঁর বিরুদ্ধে সম্পত্তির হিসেব গোপন করার অভিযোগ আনলেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। এই সৌমিত্র আগে জোড়াফুল শিবিরেই ছিলেন, পরে দল বদলে পদ্ম শিবিরে নাম লেখান এবং ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে জয়লাভ করেন। সৌমিত্র ফেসবুকে অভিষেকের উইকিপিডিয়ার তথ্য স্ক্রিনশট নিয়ে পোস্ট করেছেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে অভিষেকের মোট সম্পত্তির মূল্য ১২৫১ কোটি টাকা। পোস্টের ক্যাপশনে সৌমিত্র লিখেছেন, ‘তৃণমূলের কর্মীরা দেখুন। এখন আর আপনারা পার্টির কর্মী না, অভিষেকের ব্যবসার স্টাফ (কর্মচারী) ! মাত্র পাঁচ বছরে অভিষেকের আয় ১২৫১ কোটি টাকা।’
লোকসভা নির্বাচনে লড়ার আগে নির্বাচন কমিশনকে জমা দেওয়া মনোনয়ন পত্রে স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ ৭১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা দেখিয়েছিলেন। একই সঙ্গে তাঁর কাছে থাকা সোনার পরিমাণ ৩০ গ্রাম, রুপো ৪০ গ্রাম বলে হিসেব দেখিয়েছিলেন। এখানেই শেষ নয় স্ত্রীর সম্পত্তির পরিমাণ হিসেবে দেখানো হয়েছিল প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা। মেয়ের সম্পত্তির পরিমাণ দেখানো হয়েছিল প্রায় ৩১ লক্ষ টাকা। সব মিলিয়ে মোট এক কোটি একত্রিশ লক্ষের আশেপাশে।
কালীঘাটের যে বাড়িতে অভিষেক থাকেন তা মুখ্যমন্ত্রীর নামে বলে দেখানো হয়েছে মনোনয়ন পত্রে। বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ সরাসরি না বললেও, নির্বাচন কমিশনকে দেওয়া তথ্যের সঙ্গে উইকিপিডিয়ায় দেখানো তথ্যের অমিলটাই তুলে ধরতে চেয়েছেন বলে ওয়াকিবহাল মহলের মত। তৃণমূল সাংসদ অবশ্য এখনও এ নিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি।