অতিমারির মাঝেও ইউরোপের বিভিন্ন শহরে ইউরো কাপ আয়োজনের ফল পেতে শুরু করলেন আয়োজকরা। শুক্রবার রাশিয়ার অন্যতম প্রধান শহর সেন্ট পিটার্সবার্গে রেকর্ড সংখ্যক মানুষ মারা গেলেন করোনায়। সরকারি খবর অনুযায়ী, মোট ১০৭ জন মারা গিয়েছেন শুক্রবার, অতিমারি শুরু হওয়ার পর থেকে যা সর্বোচ্চ।

ইউরোপের যে সব শহরে ইউরো হচ্ছে, তার কয়েকটিতে ইতিমধ্যেই করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে। সেন্ট পিটার্সবার্গে এখনও পর্যন্ত ছ’টি ম্যাচ হয়েছে। আগামী শুক্রবার কোয়ার্টার ফাইনালের একটি ম্যাচও হওয়ার কথা। বেলজিয়ামের বিরুদ্ধে দলকে সমর্থন করতে এসে এই শহরেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন ফিনল্যান্ডের ১২ জন সমর্থক। গোটা রাশিয়াতেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ফের বাড়ছে। শনিবার মোট ২১,৬৬৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

মস্কোর তরফে জোর দেওয়া হচ্ছে প্রতিষেধকের উপরেই। মস্কোর মেয়র সের্গেই সোবিয়ানিন বলেছেন, “এই অতিমারিকে থামাতে বিরাট মাপের প্রতিষেধক দান ছাড়া কোনও উপায় নেই। হয় প্রতিষেধক নিন, নয়তো লকডাউনে থাকুন।”