নিউজপোল ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছুদিন আগেই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। তাতে উত্তরপ্রদেশের শ্রমমন্ত্রী রঘুরাজ সিং ভাষণ দিচ্ছেন এই বলে যে, যারা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে স্লোগান দিচ্ছে তাদের জ্যান্ত কবর দেওয়া হবে। প্রকাশ্য জনসভায় এমন হিংসাত্মক হুমকি নিয়ে যথেষ্টই বিতর্ক ছড়িয়েছিল। মজার বিষয় হল, এখন সেই মন্ত্রীর ফোনেই অজ্ঞাতপরিচয় নম্বর থেকে হুমকি আসছে। হুমকির ভয়ে সোজা পুলিশের দ্বারস্থ হলেন তিনি।

রঘুরাজ সিং বলছেন, একাধিক নম্বর থেকে তাঁকে প্রাণে মারার হুমকি আসছে। পুলিশের কাছে নিরাপত্তার জন্য সাহায্যও চেয়েছেন তিনি। রিপোর্ট অনুযায়ী, লখনউয়ের হজরতগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের রিপোর্ট অনুযায়ী, রঘুরাজ জানিয়েছেন, ইন্টারন্যাশনাল নম্বর থেকে প্রাণনাশের হুমকি আসছে। তিনি বলেছেন, ‘কোনও এক অজ্ঞাত ব্যক্তি প্রাধানমন্ত্রী এবং মুখ্যমন্ত্রীর কবর খোঁড়ার হুমকি দিচ্ছে। এমনও বলেছে, আমাকেও বোম মেরে উড়িয়ে দেবে। সে বলেছে সমস্ত পরিকল্পনা করা হয়ে গেছে। ওই নম্বর থেকে পাঁচবার ফোন এসেছে, আমি তিনবার ফোন তুলেছি এবং তিনবারই একই রকম হুমকি দেওয়া হয়েছে।’

রঘুরাজকে যখন তাঁর হুমকি দেওয়ার ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হয় তখন তিনি বলেন, ‘আমি আলিগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিক্ষোভ নিয়ে কথা বলেছিলাম। ওখানে মুখ্যমন্ত্রী এবং প্রধানন্ত্রীর বিরুদ্ধে স্লোগান দেওয়া হচ্ছিল। বলা হচ্ছিল আলিগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঠে প্রধানমন্ত্রীর কবর খোঁড়া হবে।’