পুরভোটে প্রার্থী কাঁটায় ফের জর্জরিত পদ্ম শিবির। সোমবার সন্ধেয় জঙ্গিপুর পুরসভার বিজেপি প্রার্থীদের নামের তালিকা ঘোষণা হতেই ধুন্ধুমার বেধে গেল মুর্শিদাবাদে। সাংগঠনিক জেলা সভাপতিকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাল বিক্ষুব্ধ গোষ্ঠী। ভাঙচুর চলল দলীয় কার্যালয়ে। বিক্ষোভের আঁচ এসে পড়ে রাস্তাতেও। সেখানে দুই দলের হাতাহাতিও হয়। এই ঘটনায় বেজায় বিড়ম্বনায় গেরুয়া শিবির।

সোমবার সন্ধেয় রঘুনাথগঞ্জের ম্যাকাঞ্জি ময়দান মোড়ে উত্তেজনা ছড়ায়। প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হতেই উত্তর মুর্শিদাবাদ জেলার সাংগঠনিক সভাপতি ধনঞ্জয় ঘোষকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে দলীয় কর্মীদের একাংশ। দলীয় কর্মীরা ‘চোর চোর’ বলে স্লোগানও দিতে শুরু করেন। টাকার বিনিময়ে টিকিট বিক্রি করা হয়েছে বলে অভিযোগ করে ক্ষুব্ধ বিজেপি কর্মীরা দলীয় কার্যালয়ে ভাঙচুর চালায়। কার্যালয়ের সামনের রাস্তায় বসেও বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। প্রার্থী তালিকা ঘিরে বিজেপির দু’গোষ্ঠীর মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। একে অপরকে জুতো দিয়ে মারধর করে। এ প্রসঙ্গে বলে রাখা দরকার, এখনও পর্যন্ত সমস্ত ওয়ার্ডে প্রার্থী দিতে পারেনি গেরুয়া শিবির।

বিজেপি কর্মী সূরয ঘোষের অভিযোগ, “জেলা সভাপতি মোটা টাকার বিনিময়ে টিকিট বিক্রি করেছে।” যদিও জেলা সভাপতি ধনঞ্জয় ঘোষের সাফাই, “যে সব কর্মীদের দলবিরোধী কার্যকলাপের জন্য শোকজ করা হয়েছে, তাঁরা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে এধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে।”

মাস কয়েক আগে জঙ্গিপুর ও সামশেরগঞ্জ বিধানসভা নির্বাচনে দুই কেন্দ্রে বিজেপি বড়সড় ধাক্কা খেয়েছে। এবার পুরভোটে জঙ্গিপুর ও ধুলিয়ান পুরসভা নির্বাচনে সব আসনে প্রার্থী দিতে পারল না বিজেপি। দু’টি পুরসভার ৪২টি আসনের মধ্যে মাত্র ২২টি আসনে প্রার্থী ঘোষণা করল বিজেপি। বিজেপির প্রার্থী তালিকায় মাত্র দু’জন সংখ্যালঘু প্রতিনিধি রয়েছেন।