রাজ্যে ফের হু হু করে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। গত ২৪ ঘণ্টায় ১০০ পেরল আক্রান্তের সংখ্যা। যদিও শুক্রবারেও করোনা প্রাণ কাড়তে পারেনি কারও। তবে স্বস্তি একটাই বৃহস্পতিবারের তুলনায় বাড়ল সুস্থতা।

রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তরের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলায় করোনা বাসা বেঁধেছে ১০৭ জনের শরীরে। তার ফলে পজিটিভ কেসের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২০ লক্ষ ২০ হাজার ৩৪। তবে ধারাবাহিকতা বজায় রেখে এদিনও করোনায় মৃত্যুহীন বাংলা। এখনও পর্যন্ত ভাইরাসের থাবায় প্রাণ হারিয়েছেন ২১ হাজার ২০৫ জন। মৃত্যুহার ১.০৫ শতাংশ। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতা বাড়ল কিছুটা। একদিনে ৪৯ জন ভাইরাসকে হারিয়ে সুস্থ হয়েছেন। তার ফলে করোনাজয়ীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৯ লক্ষ ৯৮ হাজার ২৫৪ জন। কোভিডজয়ীর হার ৯৮.২৯ শতাংশ।

২০২০ সালের মার্চ থেকে করোনার থাবায় প্রায় জবুথবু গোটা বিশ্ব। সেই সময় থেকে নমুনা পরীক্ষায় বিশেষ জোর দেন বিশেষজ্ঞরা। তবে করোনার প্রকোপ কিছুটা কমার ফলে নমুনা পরীক্ষায় উদাসীনতা বাড়ে। শুক্রবার রাজ্যে ৭ হাজার ৬৮৯টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত মোট ২ কোটি ৫৩ লক্ষ ৮৯ হাজার ১৫৯টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। পজিটিভিটি রেট ১.৩৯ শতাংশ। করোনা মোকাবিলায় টিকাকরণ অত্যন্ত জরুরি। শুক্রবার সারাদিনে ৩৫ হাজার ৬৬২ ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে। প্রিকশন ডোজ দেওয়া হয়েছে ৩০ লক্ষ ৭৯ হাজার ১৭১টি।

গোটা দেশজুড়ে ফের চোখরাঙাচ্ছে করোনা। হু হু করে বাড়ছে সংক্রমণ। এই পরিস্থিতিতে সামান্য উদাসীনতাই ফের বড়সড় বিপদ ডেকে আনতে পারে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই উপযুক্ত কোভিডবিধি মেনে চলার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের। সংক্রমণ এড়াতে মাস্ক এবং স্যানিটাইজার ব্যবহারের পরামর্শ তাঁদের।