নিউজপোল ডেস্ক:‌ ফ্লোরিডার সমুদ্র সৈকতে বছরের এই সময়ে ভেসে আসে বিভিন্ন বয়সের কচ্ছপ। ঠিক তেমন ভাবেই ভেসে এসেছিল শিশু কচ্ছপটি। উদ্ধারকারীরা তাকে পার্শ্ববর্তী গুম্বো লিম্বো নেচার সেন্টারে নিয়ে এসেছিল। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটায় তার পাকস্থলী পরীক্ষা করা হয়। তারপর তার পেট থেকে যা বেরোল, তার ছবি তামাম বিশ্বকে কাঁপিয়ে দিয়েছে। শিশু কচ্ছপটি সমুদ্রে প্রায় ১০৪টি প্লাস্টিকের টুকরো খেয়ে ফেলেছিল, যার ফলে উদ্ধার হওয়ার কিছু সময় পরেই তার মৃত্যু হয়। সেই টুকরোগুলির মধ্যে ছিল বিভিন্ন রকমের বেলুন, বোতলের অংশ। গুম্বো লিম্বো নেচার সেন্টারের ফেসবুক পেজে সেই কচ্ছপ এবং তার পাকস্থলী থেকে বের হওয়া ১০৪টি প্লাস্টিকের টুকরোর ছবি পাশাপাশি রেখে লেখা হয়, ‘‌খুব আনন্দের ছবি এটি নয়। সমুদ্রতটে ভেসে আসা বেশিরভাগ প্রাণী মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। তাদের মৃত্যুর কারণ প্লাস্টিক। আপনার হাতের তালুর আকারের এই কচ্ছপটি ১০৪টি প্লাস্টিক খেয়ে ফেলেছে। এই ঘটনাগুলো আমাদের বারবার সচেতন করছে সমুদ্রকে স্বচ্ছ রাখার বিষয়ে’‌।
তামাম নেট-বিশ্ব এই ছবি দেখে হতাশ হয়ে পড়েছে। গুম্বো লিম্বো নেচার সেন্টারের সামুদ্রিক কচ্ছপ পুনর্বাসন সহকারী এমিলি মিরোস্কি জানান, কচ্ছপটি খুব দুর্বল ছিল, যখন তাকে আনা হয়েছিল। সমুদ্রতটে ফিরে আসার মরসুমে বেশির ভাগ কচ্ছপ মৃত অবস্থায় ফিরে আসে। তাদের প্রত্যেকের পেটেই প্লাস্টিক পাওয়া যায়। ‘‌সমুদ্রের জলে প্লাস্টিকের ছোট ছোট কণা অ্যালগি, শ্যাওলার গায়ে লেগে থাকে– যা দেখে শিশু কচ্ছপরা খাবার বলে ভুল করে। এই মুল সমস্যার কারণে কচ্ছপদের মৃত্যু বাড়ছে। যদিও এই কয়েক বছরে প্লাস্টিকের ব্যবহারে যথেষ্ঠ সচেতন হয়েছেন জনগন’‌, জানান এমিলি।